হুমকির মুখে গণমাধ্যম, চারিদিকে বইছে তবু বাংলা বসন্তের হাওয়া

অত্যন্ত উদ্বেগ ও ক্ষোভের সাথে জানানো যাচ্ছে যে ১২ মার্চ ঢাকা চলো কর্মসূচী সরাসরি সম্প্রচারের উদ্যোগ নেয়ায় হুমকির মুখে পড়েছে গণমাধ্যম। ইতোমধ্যেই বেশকিছু চ্যানেল সরাসরি সম্প্রচার থেকে বিরত থাকতে বাধ্য হয়েছে; শাহরিয়ারের স্বপ্নবিলাস, বিএনপি লাইভ ডট কম, ঢাকা চলো ডট কমসহ অসংখ্য ওয়েবসাইট বাংলাদেশ থেকে ভিজিট করা যাচ্ছে না। কিছু কিছু সাইট পুরো দেশব্যাপী নিষিদ্ধ রয়েছে, কিছু ওয়েবসাইট নির্দিষ্ট আইএসপি থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একইসাথে দেশের বিভিন্ন স্থানে টেলিভিশন সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আরো উদ্দেগ্যের ব্যাপার হলো খালেদা জিয়ার ভাষণ সম্প্রচারের সময় অত্যন্ত জনপ্রিয় টিভি চ্যানেল একুশে টেলিভিশনের ফ্রিকোয়েন্সিতে গান ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে ফলে সরাসরি সম্প্রচারে খালেদা জিয়ার ভিডিও দেখা গেলেও দর্শকরা বেশ কিছু সময় খালেদা জিয়ার ভাষণের পরিবর্তে গান শুনতে বাধ্য হয়েছেন।

সরকারের এহেন আচরণ আমাদেরকে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাকশালী অপশাসনের কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়, যখন মাত্র ৪টি পত্রিকা বাদে বাংলাদেশের সকল পত্রপত্রিকা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। বাংলাদেশ আবারো রক্ষীবাহিনীর পদচারণায় ভীতসন্ত্রস্ত। মানুষ আজ চরম নিরাপত্তাহীন, পথে ঘাটে, রাজপথে সাধারণ মানুষ, বুদ্ধিজীবী, মিডিয়াকর্মী এমনকি বিদেশী কূটনীতিকরাও বেঘোরে প্রাণ হারাচ্ছে। সাধারণ মানুষ আজ মুক্তি চায়, বাকশালের হিংস্র ছোঁবল থেকে বাঁচতে চায়, অযোগ্য, অপদার্থ সরকার; দেশ-জাতি-মানবতার শত্রু বাকশালের বন্দীশালা থেকে বাংলাদেশ মুক্তি চায়।

আজকের ১২ মার্চের মহাসমাবেশে বাংলাদেশ আজ উজ্জীবিত। বাংলার মানুষ দেখতে পেয়েছে ঘোর কালো অন্ধকারের বুক চীরে পূবাকাশে উঁকি দিচ্ছে সোনালী সূর্য কিরণ। বাংলার মানুষ আজ এক সমুদ্র আশা নিয়ে অপেক্ষায়। বাংলা বসন্তের মৃদুমন্দ বাতাসে তির তির করে কাঁপছে বাংলাদেশ। প্রয়োজন সুনির্দিষ্ট কর্মসূচী, প্রয়োজন আপোষহীন নেতৃত্ব, প্রয়োজন একদফা কর্মসূচী, প্রয়োজন সমস্বরে উচ্চারণ “বাকশাল মুক্ত বাংলাদেশ চাই”।

দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, সমগ্র দেশবাসী আজ আপনার দিকে তাকিয়ে, বাংলা বসন্তে ভেসে যাক বাকশাল, আপনার কাছে এমনটাই দেশবাসী প্রত্যাশা।

2 Replies to “হুমকির মুখে গণমাধ্যম, চারিদিকে বইছে তবু বাংলা বসন্তের হাওয়া”

  1. চমতকার! সাদিনতা না তাকেল লিখলেন কেমনে ?

    [উত্তর দিন]

    শাহরিয়ার উত্তর দিয়েছেন:

    লেখাটি বাংলাদেশ থেকে পোস্ট করা হয় নি। সাইটটি শুধু বাংলাদেশে ব্লক করা হয়েছিল।
    বর্তমানে বিকল্প ব্যবস্থায় সাইটটি বাংলাদেশে প্রদর্শিত হচ্ছে।

    [উত্তর দিন]

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.