ভিন্ন মতাবলম্বীরাই সমাজের জন্য হুমকি (?)

somewhereinblog1 somewhereinblog
অবশেষে আশংকা সত্যি হলো। ২০০৬ সালের শেষ দিকে এসে মনে হয়েছিল আমার লেখা বোধহয় আর নিরাপদ নয় সামহোয়ারইনব্লগ.নেট এ। যুদ্ধের ময়দান, মধ্য দূপুরে মরুভূমির বালুর ন্যায় উত্তপ্ত। নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করার মতো বিবেকহীন কোন কালেও ছিলাম না, থাকতে পারি নি সেদিনও। তাই ২৮ অক্টোবর নিয়ে নিজের চোখে দেখা অভিজ্ঞতাগুলো শেয়ার করি ব্লগার বন্ধুদের সাথে।

ব্লগ কর্তৃপক্ষের খামখেয়ালী আর একপেশে সিদ্ধান্ত মাঝে মাঝে মনে সংশয় জাগাতো, আসলেই কি ব্লগে আমার লেখাগুলো নিরাপদ থাকবে? আসলেই কি এগুলো হারিয়ে যাবে একদিন ভার্চুয়াল জগত থেকে?

সন্দেহ সংশয় যখন বাসা বাঁধে তখন এ থেকে উত্তরণের জন্যও পথ থাকে। তাই দ্রুত ব্লগস্পটে এর কপিগুলো সংরক্ষণ করি। তারপরও সংশয় থেকেই যাই, তাই শেষ পর্যন্ত নিজের নামেই একটি ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করে তবে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারি। অবশ্য এটিও যে ক্ষমতার দাপটে নিষিদ্ধ হবে না তারও কোন গ্যারান্টি নেই।

হ্যা, আমার আশংকা অমুলক ছিল না। অনেকেই বলতেন সামহোয়ার ইনব্লগ তো এখন সামহোয়ারইন আওয়ামী ব্লগ হয়েছে গেছে। কথাটির তাৎপর্য বুঝতে আমার বেশ দেরী হয়, কারণ অনেক দিন ব্লগে ছিলাম না, বিশেষ করে গ্রামে চলে যাওয়ায় আমার পর ভার্চুয়াল জগতে প্রবেশ একেবারেই দুরূহ হয় পরে।

সে যাই হোক, আবার যখন ফিরে আসি, সম্পূর্ণ অচেনা পরিবেশ, অজানা সব বন্ধুরা লিখে চলেছে অবিরাম। এদের মাঝে লিখতে গিয়ে নিজেকে খুব নিঃসঙ্গ মনে হয়। তারপরও লিখে গেলাম।

এটা বুঝতে পারি, যারা আমাকে একসময় শত্রু ভেবেছিল তারা আমার সাময়িক অনুপস্থিতিকে স্থায়ী মনে করে তৃপ্ত হয়েছিল। তাই আমার কোন কোন লেখায় অশ্লীল মন্তব্য করে লেখাগুলোর উপসংহার টানার ব্যর্থ চেষ্টা চালিয়েছিল ওরা। তাইতো দেখি অশ্লীল মন্তব্যসহ লেখাগুলো দাপটের সাথেই তিন তিনটি বছর ব্লগে স্থায়ী হয়েছিল।

নতুন করে ব্লগে এসে পুরনো লেখা থেকে ফজলে এলাহ নামের নকল একটি নিকের অশ্লীল মন্তব্য মুছে দেয়, এটাই আমার অপরাধ হয়েছে কি না জানা নেই তবে এর দুদিন বাদেই আমার লেখা তথ্য সন্ত্রাস ও বর্বরতার শিকার ইসলামী আন্দোলন ড্রাফ্টে পরিণত করে এবং নিরাপদ ব্লগার থেকে সরাসরি ব্লক্ড ব্লগারে পরিণত করার আদৌ কোন যুক্তি আমি খুঁজে পাই না। এখন আমার লেখায় আমার নিজের মতামত জানানোরও কোন সুযোগ নেই, মন্তব্যও ব্লকড করা হয়েছে।

আমার বিরুদ্ধে নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে, কল্পিত বা মিথ্যা পোস্ট বিশৃংখলা তৈরীর উদ্দেশ্যে খবরের আকারে প্রকাশ করা হয়েছে। আরো বলা হয়েছে পোস্টে সন্নিবেশিত তথ্য কিংবা বিষয় অথবা নির্দেশনা সমাজ এবং ব্লগ কমিউনিটির জন্য হুমকি স্বরূপ।

আমার লেখাগুলো আপনাদের জন্য হুমকি স্বরূপ এটুকু বুঝতে আপনাকের তিন তিনটি বছর লেগে গেল? যেদিন এ ঘটনাগুলো ঘটেছিল, সেদিন সবাই দেখেছে এগুলো সত্য কি মিথ্যা। আমার লেখাগুলোর কোন কোন অংশ মিথ্যা এবং কাল্পনিক তা কি আমার জানার আদৌ অধিকার আছে, থাকলে মেহেরবাণী করে জানিয়ে কৃতার্থ করবেন।

আর সমাজ বা ব্লগ কমিউনিটির জন্য হুমকি বলতে যা বুঝিয়েছেন, তার ভিন্ন ব্যাখ্যা আমি দিতে পারি। এ মূহুর্তে সমাজের জন্য কোনটি বেশী হুমকি স্বরূপ? অবশ্যই জামায়াত-শিবির বিরোধী লেখা এখন সবচেয়ে বেশী হুমকির কারণ। এ লেখাগুলো তরুন সমাজকে উদ্বুদ্ধ করে রাজনৈতিক সংখ্যালঘু জামায়াত শিবিরের লাখ লাখ মানুষকে হত্যা করতে, সামুতে আমার লেখাগুলোয় আপনাদের সমমনা ব্লগারদের মন্তব্য পড়লেই তা বুঝতে পারবেন।

বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে এখন দরকার সামাজিক ও রাজনৈকি স্থিতিশীলত। একাত্তরে যারা অপরাধ করেছেন তাদের দায় নতুন প্রজন্মকে দেয়ার যেমন কোন অধিকার কারো নেই, ঠিক তেমনি একাত্তরের বীরত্বের কৃতিত্বও নতুন প্রজন্মকে দেয়ার কোন সুযোগ নেই। কিছুলোক একাত্তরে অপরাধ করেছে, আর কিছু লোক সেই অপরাধের বিচারের নামে একের পর এক অপরাধ করে চলেছে। ফ্যাসিবাদী মনোভাব নিয়ে ভিন্ন মতাবলম্বীদের কন্ঠরোধ,  জামায়াত শিবির নিধনের নামে তাদের বিরুদ্ধে তরুণ সমাজকে উস্কে দেয়ার ইত্যাদি কারনে আমাকে নয় বরং আপনাদেরই নিষিদ্ধ করা উচিত।

4 Replies to “ভিন্ন মতাবলম্বীরাই সমাজের জন্য হুমকি (?)”

  1. আমার এক বন্ধু সামহোয়ারইন কে বলে সামহোয়ার ইন লীগ ব্লগ।
    আবারো সেটাই প্রমাণিত হলো। আমার জানা মতো দুজন মডারেটর আছেন যারা খাঁটি আওয়ামীলীগ। আমার মনে হয় আপনি তাদেইর কোন একজনের কোপানলে পড়েছেন।

    [উত্তর দিন]

  2. ব্লগে বিভিন্ন মতাবলম্বীরা থাকে বলে তর্ক-বিতর্ক হয়, ব্লগ আড্ডা জমে ভালো। এখানে যদি তারা মনে করে ভিন্ন মতাবলম্বী সবাইকে ব্যান করবে তাহলে তারা একঘরে হয়ে ব্লগিং করবে ভাবতেই মজা লাগে।

    [উত্তর দিন]

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.