বিশ বসন্তের এক বুড়ির কথা

জন্মদিন নিয়ে খুব একটা হৈ-হুল্লোর করা আমার স্বভাবে নেই। আমার নিজের জন্মদিনটি নিয়েই তেমন আগ্রহ নেই, এমন কি পরিবারের বন্ধুরা উইশ না করা পর্যন্ত আমি আমার জন্মদিন সম্পর্কে জানতেই পারি না।

তবু জীবনের পথ-চলায় এমন কিছু মানুষের সাথে পরিচয় হয় যাদের ক্ষেত্রে আমার এ থিউরী খুব একটা কাজ করে না। এমন অনেক বন্ধু আছে যাদের সুখের দিনগুলো স্মরণীয় করে রাখতে খুব ইচ্ছে হয়। তারা যেন সুখে থাকে, তাদের প্রতিটি সূযের্াদয় যেন ভালোবাসার ছোয়ায় পূর্ণ হয়, দিনটি যেন কাটে প্রজাপতির ডানায় ভর করে, সন্ধ্যেগুলো কাটে আনন্দে অবগাহনে আর দিনটি যেন শেষ হয় আশাতীত প্রাপ্তি নিয়ে। মনে হয় ওদের জীবন যেন অতলান্ত স্বচ্ছ সরোবরের মতো টলমল করে ভালোবাসায়।

আমার এমনই এক বন্ধু আস্তমেয়ে। আমি অবাক হয়ে এ মেয়েটির দূরন্তপনা দেখি একই সাথে বিস্মিত হই তার অগাধ জ্ঞান দেখে। মাত্র ১৯টি সোনালী বসন্ত পার করে যে কুড়িতে পা দিচ্ছে, জ্ঞানের রাজ্যে তার দৃঢ় পদক্ষেপ দেখে আমি হতবাক হয়ে যাই।

ওর বয়সে আমি কি করতাম, যতটুকু মনে পড়ে বন্ধুদের সাথে আড্ডা পিটিয়েই সময়গুলোকে হত্যা করেছি। অথচ ১৯ বছরের একটি মেয়ে কত অনায়াসেই না কাধে তুলে নিতে পারে চলি্লশোর্ধ বুড়ো পন্ডিতদের ভার, কত সহজেই না যুক্তির তরবারী দিয়ে খন্ডাতে পারে প্রতিপক্ষের কঠিন কঠিন যুক্তি। যে বয়েসে বন্ধুদের সাথে প্রেমের গল্প করার কথা, নির্ঘুম রাত কাটানোর কথা স্বপ্নের রাজকুমারের কথা ভেবে ভেবে, সেই মেয়ে যখন দ্বীনের কঠিক কঠিন সমস্যা নিয়ে ভেবে ভেবে, বিভিন্ন ওয়েব ঘেটে ঘেটে রাত কাবার করে দেয়, তখন নিজেকে খুব সামান্য মনে হয়। তারপরও সান্ত্বনা এই যে, আমারই ছোট বোন আমাকে কতকিছু শেখাচ্ছে, আমারই বোন দ্বীনের জন্য কত পরিশ্রম করছে তখন আনন্দে প্রাণ ভরে যায়। আমার ছোট বোনটি যদি বেঁচে থাকতো সেতো ওরই সমবয়েসী হতো আজ।

যারা এমন এক যোদ্ধাকে পৃথিবীর আলোবাতাসে নিয়ে এসেছেন, যারা জ্ঞানের অস্ত্র দিয়ে যুদ্ধের জন্য প্রস্তত করেছেন তিলে তিলে, তাদের কথা ভাবলে শ্রদ্ধায় মাথা নুয়ে আসে। পৃথিবীর সকল অভিভাবক এমন করে যদি সন্তানদের আদর্শ মানুষ তৈরীর কাজে আত্মনিয়োগ করে তবে এ পৃথিবীতেই তো স্বর্গের সুখ নামিয়ে আনা সম্ভব।

যাঁরা পঙ্কিলময় এ পৃথিবীতে স্বর্গের সুখ নামিয়ে আনার মহান দায়িত্বে নিয়োজিত আস্তর সেই মা-বাবাকে আস্তর জন্মদিনে আমার প্রাণঢালা শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।

ভালো থেকো আস্ত।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.