দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায় আজ যা প্রকাশিত হতো

দৈনিক আমার দেশ-এর তেজগাঁওয়ের প্রেসে গত রাত ১১টার দিকে বিপুলসংখ্যক পুলিশ গিয়ে জানায় পত্রিকাটির প্রকাশনা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তখন ছাপা চলছিল। তারা ছাপা হওয়া পত্রিকাগুলোও বিতরণে নিষেধাজ্ঞা আছে বলে জানায়। তবে তারা কোন অফিস আদেশ দেখাতে পারেনি। অন্যদিকে ঐ প্রেসে অন্য যেসব পত্রিকা ছাপা হয় রাত ১২টা পর্যন্ত সেগুলো ছাপা হচ্ছিল। প্রায় একই সময়ে রাত ১১টার দিকে পত্রিকাটির কারওয়ান বাজার অফিসেও শত শত পুলিশ ঘিরে ফেলে এবং একপর্যায়ে তারা আমার দেশ কার্যালয়ে ঢুকতে গেলে সাংবাদিকরা আপত্তি জানায়।
পুলিশ জানায়, পত্রিকার সম্পাদকের বিরুদ্ধে যে প্রতারণা মামলা হয়েছে সেই মামলায় তারা উপরের নির্দেশে তাকে গ্রেফতার করতে এসেছে। তবে তারা কোন ওয়ারেন্ট দেখাতে পারেনি। এ অবস্থায় সাংবাদিকরা বাধা দেন এবং ওয়ারেন্ট ছাড়া এ ধরনের গ্রেফতার বেআইনি জানায়। রাত সোয়া বারোটায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান আমার দেশ কার্যালয়ে তার অফিসে অবস্থান করছিলেন। গেটে সাংবাদিকদের সঙ্গে পুলিশের বাদানুবাদ চলছিল। পুলিশ জানিয়েছে, তারা মাহমুদুর রহমানকে গ্রেফতার না করে ফিরে যাবেন না। সাংবাদিকদের হঠাতে বিপুল দাঙ্গা পুলিশ নিয়ে আসা হয়।
মাহমুদুর রহমানের সঙ্গে সহমর্মিতা প্রকাশের জন্য মধ্যরাতেও বিপুল সংখ্যক পেশাজীবী তার অফিসে অবস্থান করছিলেন। এদিকে ২ জুনের আমার দেশের যেসব কপি ছাপা হয়েছিল গতরাতে তা বাংলাভিশনসহ বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে দেখানো হয়েছে।

প্রথম পাতা

আমার দেশ বন্ধের পাঁয়তারা : মাহমুদুর রহমানকে গ্রেফতারের প্রক্রিয়া : বাকশালী কায়দায় পত্রিকা বন্ধ করা হচ্ছে

সম্পাদকীয়

বাজেট হতে হবে জনগণের স্বার্থে

8 Replies to “দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায় আজ যা প্রকাশিত হতো”

  1. জয় বাংলা ! খেতা বালিশ সামলা!!
    বাকশাল আবার কায়েম হল !!!

    [উত্তর দিন]

    কাঙ্গাল উত্তর দিয়েছেন:

    জয় বাংলা কুত্তা লীগ সামলা
    ৭৫ -এর বাকশাল কায়েম হলো আরেক বার।

    [উত্তর দিন]

    শাহরিয়ার উত্তর দিয়েছেন:

    সবে তো শুরু, নাটকের অনেক বাকী।
    আল্লাহই ভালো জানেন সমাপ্তিতে কি আছে।

    [উত্তর দিন]

  2. বড়দের মুখে ৭২-৭৫ এর ভয়ংকরতম গল্প শুনে অবিশ্বাস হত, একটা সরকার এত্ত অজনপ্রিয় হয় কি করে? আর মুজিবের মত এমন মহান নেতার স্বপরিবারে মুত্যুতেও দেশবাশী একটুও হা পিত্যেষ করেনি এটা বড় বেমানান । ৯৬-০১ এর আওয়ামী সন্ত্রাস কে খুব একটা মনে নেই, কারান তখন ছিলাম স্কুলবয়, রাজণীতি দেশনীতি বুঝিনা, ২৮ অক্টোবর ট্রাজেডিকে নিতান্তই রাজনীতির খেলা ভেবেছি, একটা সত্যিকারের পরিবতর্নের আশায় ভোট দিয়েছিলাম শেখ হাসানার আওয়ামীলীগকে, কিন্তু সেই সমরথন নিয়ে একটা সরকার রীতিমত এতটা হিংস্র হায়েনার চেহারায় রুপ নিবে ভাবতেই নিজের ভূলের প্রায়শ্চিত্ত করতে মনে চায়।

    সাবাশ হাসিনা সরকার!
    জয় মুজিবের কইন্যা।

    [উত্তর দিন]

    শাহরিয়ার উত্তর দিয়েছেন:

    আমাদের গোল্ডফিস মেমোরির দূর্ণাম আছে। বার বার তা প্রমাণিত হয়। তাইতো ফিরে ফিরে আসে বাকশাল।

    [উত্তর দিন]

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.