দেলু শিকদার আর দেলোয়ার সাঈদী এক ব্যক্তি নন : দেলু শিকদারের ভাইয়ের স্বীকারোক্তি

‘আমরা বর্তমান সাঈদীর বিচার করছি না। বিচার করছি এখন থেকে ৪২ বছর আগের দেলু শিকদারের’ আল্লামা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর রায় ঘোষণার সময় এমনটাই দাবী করে ট্রাইব্যুনাল। আজ প্রমাণিত দেলোয়ার শিকদার ওরফে দেলু শিকদার ওরফে দেল্যা রাজাকার আর আল্লামা দেলোয়ার হোসেন সাঈদী এক ব্যক্তি নন। স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা, প্রত্যক্ষদর্শী এবং দেলু শিকদারের আপন ছোট ভাইয়ের স্বীকারোক্তি-মাওলানা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদী এবং দেলু শিকদার একই ব্যক্তি নন। এরপরও আল্লামা সাঈদীকে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝোলানোর আয়োজন চলছে। তার একটাই অপরাধ, তিনি ইসলামী আন্দোলন করেন, কোরআনের কথা বলেন, আল্লাহর পথে মানুষকে ডাকেন, নেক আমল করেন এবং নিজেকে একজন মুসলমান বলে সাক্ষ্য দেন। তার অপরাধ, তার আহ্বানে সাড়া দিয়ে, তার হাতে ইসলামের বাইয়াত গ্রহণ করেছেন ছয় শতাধিক অমুসলিম। এমন ব্যক্তিকে ফেরাউনের উত্তরসূরীরা ফাঁসিতে ঝোলাবে না তো কাকে ঝোলাবে?

ট্রাইব্যুনালে দেয়া আল্লামার বানীটি কেবল আমাদের সান্তনা “এই বিচার দুই পর্বে শেষ হবে। এক পর্বে আপনারা বিচারক, আমি আসামি। দ্বিতীয় পর্বে আরেকটি বিচার হবে কেয়ামতের মাঠে। যেখানে বিচারক হবেন আল্লাহ। ওই বিচারের দিন আমি থাকবো বাদী। আপনাদের করবো বিবাদী।”

ইসলাম বিদ্বেষী ও মুর্তি পূজারী ভারত সরকারের ক্রীতদাস হাসিনা তোমার সাঙ্গ পাঙ্গ আর তোমার পূর্ব পুরুষ শেখে মুজিব-আবু লাহাব-ফেরাউন-নমরুদকে সাথে নিয়ে সে দিনের অপেক্ষায় থাকো, অপেক্ষায় থাকলাম আমরাও। জেনে রেখো, আল্লাহর আদালতে জুলুম চলে না।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.