ইসলাম বিরোধী আ’লীগ সরকারের বর্বরতা থেকে সর্বশক্তিমান আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাই

أعوذ بالله من الشيطان الرجيم Continue reading “ইসলাম বিরোধী আ’লীগ সরকারের বর্বরতা থেকে সর্বশক্তিমান আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাই”

মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে আকুল আবেদন

মহামান্য রাষ্ট্রপতি, জাতির এ ক্রান্তিলগ্নে নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টার গুরুদায়িত্ব স্বীয় কাধে গ্রহণ করে দেশের ১৪ কোটি জনতার মনে যে স্বস্তি ফিরিয়ে দিয়েছেন তার জন্য আপনাকে জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন ও মোবারকবাদ। শারীরিক অসুস্থতা ও বার্ধ্যক্যের পেরেশানী সত্ত্বেও দেশের জনতার ভূলুষ্ঠিত জান ও মাল রক্ষার্থে সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত জাতিকে অনিশ্চিত অন্ধকার থেকে মুক্তি দিয়েছে, তা জাতি চীরদিন সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করবে।

বিগত কয়েকটা দিন স্মরণকালের জঘন্যতম যে নারকীয় তান্ডব ১৪ দলীয় জোট দেশব্যাপী চালিয়েছে তা দেশের আম-জনতাকে ভীত সন্ত্রস্ত ও উৎকন্ঠিত করে তুলেছে। দেশের জনগনের অধিকার আদায়ের নামে নিরীহ নাগরিকদের প্রাণ স্পষ্ট দিবালোকে যে পৈশাচিক উন্মত্ততায় হরণ করা হলো তা বিশ্ববাসীকে হতবাক করে দিয়েছে। যে শিশু এ নিসংশতা দেখেছে সে শিশুর পক্ষে আর কোনদিনও কি সম্ভব হবে এ বিভ্যৎস দৃশ্য মন থেকে মুছে ফেলা? না সম্ভব নয়, বরং এ দৃশ্যের সাথে যোগ হবে আরো হাজারো হরর কল্পনা যা শিশুটিকে তাড়িয়ে বেড়াবে আমৃত্যু অনিশ্চয়তার দিকে। আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম আর কোন দিনই নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে নিশংসয় হতে পারবে না। যে মায়েরা টগবগে তরুনদের পিটিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে উল্লাস করেতে দেখেছেন মানুষবেশী হায়েনাদের, তাদের পক্ষে কি আর কখনো সম্ভব হবে নাড়ীছেড়া ধন সন্তানদের ঘরের বাইরে পাঠিয়ে একদন্ড স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার। না সম্ভব নয়, বাংলায় মায়েদের চোখে ভাসবে হায়েনাদের বিভৎস মুখ, পৈশাচিক উল্লাস। Continue reading “মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে আকুল আবেদন”

আলোকিত নেতা মওদূদী (রহ:) : সংবিধান প্রনয়ণ আন্দোলনে

সদ্য স্বাধীন পাকিস্তান রাষ্ট্রের নাক পর্যন্ত ডুবে ছিলো হাজারো সমস্যায়। এর মধ্যে দেশের জন্য একটি আদর্শ শাসনতন্ত্র প্রণয়ন ছিল সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।
পাকিস্তান রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে মুসলমানদের ধর্মীয় আবেগকে ব্যবহার করা হয়। যারা ভারতীয় উপমহাদেশে একটি ইসলামী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য নেতৃত্ব দিয়েছেন প্রকৃত পক্ষে ইসলামী রাষ্ট্র সম্পর্কে তাদের সত্যিকারের ধারণা বা সদিচ্ছা ছিল কিনা তা একটি বিশাল প্রশ্ন হয়ে আছে। যারা ইসলামী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য সাধারণ মুসলমানদের ধর্মীয় আবেগকে ব্যবহার করেছেন, যারা ইসলামের নাম নিয়ে লাখো মুসলমানকে ভারত থেকে পাকিস্তানে হিযরত করতে উদ্বুদ্ধ করেছেন, সাতচলি্লশে যাদের জন্য হাজার হাজার সাধারণ মুসলমান শিখ ও হিন্দুদের সম্মিলিত দাঙ্গায় শহীদ হয়েছেন, লক্ষ লক্ষ লোক পৌত্রিক ভিটেমাটি হারিয়ে পাকিস্তানে উদ্বাস্তু হয়েছেন, তারাই পাকিস্তান রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পর মুখোশ খুলে স্বরূপে আবির্ভূত হন। Continue reading “আলোকিত নেতা মওদূদী (রহ:) : সংবিধান প্রনয়ণ আন্দোলনে”