ইভ টিজিং, পরকীয়া : ধর্মনিরপেক্ষ বিষবৃক্ষের ফল

নারীর কোন অঙ্গ সবচেয়ে আকর্ষণীয়? শিরোনামে কিছুদিন আগে ইভ-টিজিং প্রতিরোধে একটি  ব্লগ লিখেছিলাম। সম্ভবত আমি এটি বুঝাতে ব্যর্থ হয়েছি যে, মুক্ত-স্বাধীন ষাড়ের জন্য শুধু খোয়াড়ে আটকানোর বিধান করলেই হবে না বরং ষাড়গুলো যে লালরঙা রুমাল দেখে ক্ষেপে যায় তা প্রদর্শনও বন্ধ করতে হবে। “লাল রঙ্গের রুমাল গলায় বাঁধা আমার অধিকার” এ গোঁ ধরে আমরা যদি ষাড় গরুর গুতো খাই তাতে হয়তো ষাড় গরুটাকে খোয়াড়ে আটকানো যেতে পারে, পেটানো যেতে পারে, কষাইয়ের চাপাতির তলে টুকরো টুকরো করা যেতে পারে, তবে ষাড়ের গুতোয় যে ভবলীলা সাঙ্গ হলো তা কিন্তু আর পুনরুদ্ধার হওয়ার নয়। তাই ষাড় গরুর গুতো থেকে বাঁচতে শুধু ষাড় দমন আইন করলেই হবে না বরং ষাড় ক্ষেপে যায় এমন সব আচরণ থেকেও আমাদের বিরত থাকা প্রয়োজন। এ কথাগুলোই খোলামেলা আলোচনা করেছিলাম, যাতে সবাই সহজে বুঝতে পারে। এছাড়া বিষয়টিকে বখাটেদের দৃষ্টিকোণ থেকে বিশ্লেষণ করার চেষ্টা করেছি যাতে সবাই বখাটেদের থেকে নিজেদেরকে নিরাপদ রাখতে পারে। Continue reading “ইভ টিজিং, পরকীয়া : ধর্মনিরপেক্ষ বিষবৃক্ষের ফল”