সরকার চায় শিবির অস্ত্র হাতে তুলে নিক; আমরা চাই ধৈর্যের সাথে মোকাবেলা

নির্যাতনের মাত্রা কোন পর্যায়ে গেলে মানুষ স্বাধীনতার ডাক দেয়? কতটা রক্ত ঝড়লে মানুষ অস্ত্র হাতে তুলে নেয়? কেন বীর বাঙ্গালী স্বাধীনতার যুদ্ধ করেছিল? কেন বাঙ্গালী বিশ্বের অন্যতম সুসজ্জিত সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে রুখে দাড়িয়েছিল, অস্ত্র ধারণ করেছিল, লড়াই করেছিল এবং কুকুরের মতো তাড়িয়ে বাংলাদেশ ছাড়া করেছিল? আজ স্বাধীনতার ৪২ বছর পরে তেমনি এক প্রেক্ষাপটে দাড়িয়ে স্বাধীনতা আন্দোলনকে কিছুটা হলেও অনুভব করতে সক্ষম হচ্ছি।

আইন-শৃংখলা বলতে যা বোঝায় তার ছিটে ফোটাও অবশিষ্ট নেই বাংলাদেশে। পুলিশ নামের কুকুরের মতো ভয়ংকর নির্বোধ একটি বাহিনী আছে বাংলাদেশে যা প্রভূর ইশারায় নিমিষেই দন্ত-নখর ছড়িয়ে নির্দেশিত প্রতিপক্ষের ঘাড় মটকে দিতে পারঙ্গম। ন্যূনতম বুদ্ধি-বিবেচনা এখানে একেবারেই মূল্যহীন। প্রভূর পদলেহনেই ভক্তি, পদাঘাতেই মুক্তি। Continue reading “সরকার চায় শিবির অস্ত্র হাতে তুলে নিক; আমরা চাই ধৈর্যের সাথে মোকাবেলা”