আয় ঘুম আয় ………

রাতে নগর ভ্রমনের অভিজ্ঞতা যাদের রয়েছে তারা জানেন ঢাকা কত বিচিত্র, কত রঙ্গিন, আলোকোজ্জল নগরী। তবে চোখ ধাঁধানো আলো সয়ে গেলে ধীরে ধীরে স্পষ্ট হয়ে ওঠে, ঝলমলে সালু কাপড় দিয়ে দগদগে ঘা ঢেকে রাখার কি নিরন্তন প্রচেষ্টা। তবুও উগ্র প্রসাধন গলে গলে ঠিকই বেড়িয়ে পড়ে অদ্ভুতুরে ঢাকা শহরের বিকৃত ক্ষতবিক্ষত মুখ।

সমস্ত ফুটপাত জুড়ে অসহায়, নিরাশ্রয় খেটে খাওয়া মানুষের সারি। কাওরান বাজারে যে ফেরিওয়ালারা জাতির বিবেক ফেরি করে বেড়ায়, তাদের অফিসগুলোর সামনে দল বেধে টুকরির মাঝে কুন্ডুলি পাকিয়ে ঘুমায় কাঁচাবাজারের কুলিমজুরের দল। প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের কাছে কায়িক শ্রমে কান্ত মানুষগুলো জীর্ণ মলিন এক একটা লুঙ্গিতে গা ঢেকে ঘুমায়, একই সাড়িতে নারী-পুরুষ আর বেওয়ারিশ কুকুর। শীতের রাতে একটু উষ্ণতার জন্য এরা আরো ঘনিষ্ট হয়, জড়াজড়ি করে, অন্যের গতরের উত্তাপে বেঁচে থাকা, নিজের উত্তাপটুকু আবার তাকে ফিরিয়ে দিয়ে ঋণ শোধের অকৃত্রিম প্রচেষ্টা চলে। আর উষ্ণতার জন্য কুকুরগুলো চেয়ের আদর্শ সঙ্গী আর কে হবে। হাজারো কষ্ট, জীবন যন্ত্রনা সত্ত্বেও ওরা ঘুমায় অবোধ শিশুর মতো প্রশান্তিতে। ওদের চিন্তা শুধু একটাই, দুবেলা দুমুঠো পেটপুড়ে খাওয়া। Continue reading “আয় ঘুম আয় ………”