গৃহযুদ্ধের চেয়ে হরতাল শ্রেয়!

আওয়ামী সরকারের সোয়া তিন বছরে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাসহ শতাধিক গুম সফল হয় যারমধ্যে গত তিন মাসেই ২৩ জন এবং দুই সপ্তাহে সিলেট বিএনপি ও ছাত্রদলের তিনজন গুম হয়।   ১৮ এপ্রিল ২০১২ তারিখ গুম  হওয়া বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এম. ইলিয়াস আলীর মুক্তির দাবীতে আজ তৃতীয় দিনের মতো দেশব্যাপী চলছে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল। গত বরিবারের মধ্যে ইলিয়াস আলীকে জীবিত ফেরত না দিলে লাগাতার হরতালের হুমকি বিএনপি আগেই দিয়েছিল, তবু রবিবারের ১ দিনের হরতাল ঘোষণায় সরকারী শিবিরে অনেকটা স্বস্তির শীতল হাওয়া বয়ে যেতে শুরু করে। এমনকি বিএনপি নেতা চৌধুরী আলম গুম হওয়ার পরে দীর্ঘ দু’টি বছর অতিবাহিত হলেও বিএনপির পক্ষ থেকে কার্যত তেমন কোন কার্যকর প্রতিরোধ গড়ে তোলা সম্ভব হয় নি। সঙ্গত কারনে এম. ইলিয়াস আলীর মুক্তির দাবীতে ১ দিনের হরতাল ঘোষণায় আওয়ামী লীগ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিল। তাদের ধারণা ছিল, এক-দু’ দিনের হরতালকে যদি পুলিশী দমন নির্যাতনের মাধ্যমে প্রতিহত করা যায় তবে চৌধুরী আলমের মতো ইলিয়াস আলীর মতো শক্তিশালী জনপ্রতিনিধিকেও হজম করে ফেলা সম্ভব হবে, এভাবেই সম্ভব হবে বিএনপির নেতৃত্বকে ধীরে ধীরে মেধাশূন্য করা। Continue reading “গৃহযুদ্ধের চেয়ে হরতাল শ্রেয়!”

অনিবার্য সংঘাতের দিকে ধেয়ে চলেছে দেশ

কয়েকদিন আগে বিরোধী দলীয় নেত্রীর দেশব্যাপী হরতাল আহ্বানে ক্ষুদ্ধ হয়ে “দেশনেত্রী! আরেকবার ভাবুন” শিরোনামে  ব্লগ লিখেছিলাম। আমার পরিচিত অনেক বন্ধুবান্ধবের কাছ থেকে এজন্য বেশ বাঁকা কথাও শুনতে হয়েছে। তবুও আমি অনঢ় ছিলাম, কিছুতেই আমি হরতালকে সমর্থন করার কারণ খুঁজে পাই না। একদিনের হরতালে দেশে ক্ষতি হয় ৫০০ কোটি টাকা, অবরোধে আরো বেশী। হরতালকে এতটাই ঘৃণ্য মনে হয় যে হরতাল প্রতিরোধে গণভোটের আব্দার করে বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ব্লগে গলা ফাটিয়েছি। কিন্তু আজ বাস্তবতার মুখোমুখি হয়ে যখন হরতালের বিকল্প খুঁজে চলেছি, তখন চারিদিকে শুধুই দূর্ভেদ্য পাষাণ প্রাচীরের মাথা ঠুকে যায়।

আজ কাকডাকা ভোরে বন্ধু ফোনে টিপ্পনী কাটে, “কি হে গান্ধী, এবার কি বলবে? হরতাল ভালো নাকি বাকশাল?” আমি মৃত্যুকূপে বাকশালী দৈত্য বধে অন্ধকারে আলাদিনের প্রদীপ হাতরে মরি, তবু স্যাঁতসেতে পাথুরে দেয়াল ছাড়া কিছুরই নাগাল মেলে না।  বাকশালী বন্দীশালায় হরতাল-অবরোধ নামের ঘৃণ্য নদর্মা ছাড়া পালানোর বিকল্প পথ খুঁজে পাই না। Continue reading “অনিবার্য সংঘাতের দিকে ধেয়ে চলেছে দেশ”