সম্মিলিত ওলামা পরিষদ রাজাকার : শেখ হাসিনা

শিক্ষানীতিতে ধর্মীয় শিক্ষার বিষয়টি চূড়ান্ত করার পরও ২৬ ডিসেম্বর কেন এবং কার স্বার্থে হরতাল আহ্বান করা হয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে শুক্রবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী এ প্রশ্ন তোলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘হানাদারদের দোসর ও স্বাধীনতা বিরোধীদের ডাকা হরতালে বিরোধীদলীয় নেতা সমর্থন দিয়েছেন। অথচ তিনি নিজেকে একজন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী দাবি করেন।’

উল্লেখ্য সম্মিলিত ওলামা মাসায়েখ পরিষদ শিক্ষানীতির প্রতিবাদে ২৬ ডিসেম্বর সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে। একই সঙ্গে ২৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিলেরও ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি। সম্মিলিত ওলামা মাশায়েখ পরিষদের সভাপতি মাওলানা মুহিউদ্দিন খান বলেন, যে শিক্ষানীতি পাস করা হচ্ছে তা ধর্মহীন। ধর্মহীন শিক্ষা আল্লাহর কাছে কোনো শিক্ষা নয়। একতরফাভাবে এ শিক্ষা চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে। এ শিক্ষানীতি কোনোভাবেই মেনে নেয়া হবে না।

Be Sociable, Share!

এ লেখাটি প্রিন্ট করুন এ লেখাটি প্রিন্ট করুন

“সম্মিলিত ওলামা পরিষদ রাজাকার : শেখ হাসিনা” লেখাটিতে একটি মন্তব্য

  1. আওয়ামী কূটকৌশলে হেরে গেলো আলেম সমাজ! | শাহরিয়ারের স্বপ্নবিলাস বলেছেন:

    […] হায়েনাদের চেয়েও খারাপ বলে গালি দিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী, গালি দিলেন মহিউদ্দিন খান আলমগীরসহ […]

মন্তব্য করুন