বিয়ে ভাবনা

A young man not yet, an elder man not at all- Sir Francis Bacon

বিয়ের বয়স সম্পর্কে নানা মুনির নানা মত। কেউ আগে বিয়ের পক্ষ পাতি আবার কেউ দাদুর বয়েসী না হয়ে বিয়ের পিড়িতে বসতে নারাজ।
অনেকে আবার নিজের পায়ে না দাড়ানো পর্যন্ত বিয়ে করবে না বলে গো ধরে বসে থাকে। এদের উদ্দেশ্যে একটা অশ্লীল বাণী আছে তা হলো (সেন্সরড)।
আবার অনেকে বিয়ের দায়িত্ব বাবা মায়ের কাঁধে তুলে চুটিয়ে প্রেম চালিয়ে যায়, ভাবখানা এমন বিয়ের দায়িত্ব শুধুই অভিভাবকের আর প্রেমের দায়িত্ব নিজের।
আমার এক বান্ধবীকে একটা ছেলে প্রেমের প্রস্তাব দিলে ও সরল জবাব দেয়, আম্মুকে না বলে প্রেম করলে আম্মু বকবে। এমন নীরিহ টাইপের সন্তানদের কপালে কবে বিয়ের শিকে ছিড়বে তা বিধাতাই ভালো জানেন।
আজকালকার অভিভাবকরা আবার বিয়ে সম্পর্কে উদাসীন। তারাও যে একসময় বিয়ে করেছেন তা তারা বেমালুম ভুলে বসে থাকেন।
আগেকার দিনে অভিভাবকরা ছেলেদের নাকের নীচে ঈদের চাদের মতো উঁকিমারা গোফের রেখা দেখেই কাবিন করে ফেলতেন আর মেয়ে হলেতো কথাই নেই, কোল থেকে নেমে হামাগুড়ি দিয়ে শ্বশুর বাড়ি চলে যেত।
আর আজকালকার বাবা-মারা ছেলে-মেয়ে পেকে না পঁচা পর্যন্ত বিয়ে দিতে চান না। বিদেশ থেকে এ টু জেড ডিগ্রী আর কয়েক ছটাক এইডসের বীজানু বয়ে না আনা পর্যন্ত বিয়ে দিতে চান না।

আমি ভাবি অন্য কথা। ২৫ বছরের ভেতর যদি বিয়েই না করতে পারলাম তবে আর বিয়ে করে ফায়দাটা কি? শ্রেফ সংসার করার জন্য বিয়ে, ফু।
আমি ভাই পূর্বের ট্রেডিশন ধরে রাধার জন্য বিয়ে করতে রাজি নই। বাবা বিয়ে করেছেন, করেছেন দানা, তার দাদা, তারও দাদা, তাই আমাকেও করতে হবে এমনটা আমার পক্ষে মানা সম্ভব নয়।
বিয়ে যদি করতে হয় ২৫ বছরের মধ্যেই করবো, নিজের পায়ে দাড়িয়ে বিয়ে করতে না পারলে বাপ-চাচার ঘাড়ে চড়ে বিয়ে করবো, বিয়ে করার জন্য বিয়ে করবো, পড়ে সময় সুযোগ মতো বউটাকে নিয়ে সংসার পাতবো।
বিয়ের পরে বউকে একটু সোহাগ করতে পারবো না, নয়টা-নয়টা অফিস করে ক্লান্ত হয়ে বাসায় ফিরে ঝগড়াঝাটি করে ঝাটার বাড়ি খাবার মতো সুবোধ বালক আমি নই।
আবার বুড়ো বয়সে বিয়ে করে ছুটি ছাটায় বউ নিয়ে রিক্সা করে ঘুরলে পাড়ার ছেলে-ছোকরারা টিটকারী মারে, বুড়ো বয়সে ভিমরতি, সে আমি সইতে পারবো না।
বিয়ে যদি করতেই হয় তবে ২৫-এর মধ্যেই করবো, বউ নিয়ে সবার সামনে ড্যাং ড্যাং করে করে বেড়াবো, রিক্সা নিয়ে নাকের ডগায় ঘুরবো আর তাথৈ তাথৈ নাচব।
মুরুব্বীরা আফসোস করে বলবে, ছেলেটার মাথাটাই গেছে। কেউ বা বলবে বয়সের দোষ, আস্তে আস্তে সব ঠিক হয়ে যাবে।

আপনারাই বলুন, বয়সের দোষ ভালো নাকি বুড়ো বয়সে ভিমরতি ভালো?

Be Sociable, Share!

12 Replies to “বিয়ে ভাবনা”

  1. অদ্ভুত ভালো লেগেছে। ভাই এখনই যে বিয়েটা সেরে ফেলতে ইচ্ছে করছে। পচিশ তো শেষের দিকে। কিন্তু বউকে খাওয়াবো কি এই ভাবনায় তো সব সময় তাড়িয়ে বেড়ায়। শিগগির সহিসালামতে বিয়েটা যাতে সম্পন্ন করতে পারি সে জন্য সবার কাছে দোয়া চাইছি।

    [উত্তর দিন]

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।